সভ্যতার আলো

সভ্যতার আলো, তার লিখনী দিয়ে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধশালী সভ্য জাতি গঠনে অনন্য ভূমিকা রাখবে

সাকিব অধিনায়কত্ব না করতে চাইলে তৈরি মাহমুদউল্লাহ

প্রশ্নটা শুনে মাহমুদউল্লাহ দিলখোলা এক হাসি দিলেন!

গত কিছুদিনে সাকিব আল হাসান একাধিকবার সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, দলের দায়িত্ব থেকে মুক্ত থাকতে পারলেই তিনি খুশি। অধিনায়কত্বের বাড়তি দায়িত্বটা যে উপভোগ করতে পারছেন না, সেটি চট্টগ্রাম টেস্টে পরিষ্কার বলেছিলেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার, ‘অধিনায়কত্ব যদি না করতে হয় সেটিই সবচেয়ে ভালো হবে আমার জন্য।’

সাকিব যদি অধিনায়কত্ব করতে না চান, তাঁর জায়গায় কে হতে পারেন বাংলাদেশ দলের নেতা? দলের একজন সিনিয়র খেলোয়াড়, যাঁর আগেও দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার অভিজ্ঞতা আছে—মাহমুদউল্লাহর কাছে যদি এমন প্রস্তাব আসে, লুফে নেবেন? সংবাদ সম্মেলনে এমন প্রশ্নে একগাল হাসলেন।

পরক্ষণে সিরিয়াস ভঙ্গিতেই মাহমুদউল্লাহ জানিয়ে রাখলেন, অধিনায়কত্বের ভার নিতে তিনি তৈরি, ‘এটা আসলে একটা বড় দায়িত্ব, সম্মান। কারও মন্তব্য নিয়ে কিছু বলার নেই। তবে ভবিষ্যতে যদি এ ধরনের দায়িত্ব বা চ্যালেঞ্জ আসে, তবে কেন নয়?’

গত বছর জানুয়ারিতে সাকিব চোটে পড়লে দেশের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজে আপৎকালীন দায়িত্ব নিতে হয়েছিল মাহমুদউল্লাহকে। তাঁর নেতৃত্বে কলম্বোয় নিদাহাস ট্রফিও খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশ। গত নভেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ বাংলাদেশ খেলেছিল মাহমুদউল্লাহর নেতৃত্বে।

বারবার ‘ভারপ্রাপ্ত’ হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া মাহমুদউল্লাহর কোনো আপত্তি নেই লম্বা সময়ে দলের ভার নেওয়ার।