সভ্যতার আলো

সভ্যতার আলো, তার লিখনী দিয়ে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধশালী সভ্য জাতি গঠনে অনন্য ভূমিকা রাখবে

ইটভাটা মালিককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা

গোপালগঞ্জের এক ইটভাটা মালিককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। রোববার দুপুরে গোপালগঞ্জ শহর থেকে ৫ কিলোমিটার দক্ষিণপশ্চিমে নড়াইল জেলার নড়াগাতী উপজেলার চরসিংগাতী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আসাদুজ্জামান টিটো শরীফ (৪৪)  গোপালগঞ্জ শরীফ ব্রিকসের মালিক ও গোপালগঞ্জ শহরের পাচুড়িয়া এলাকার মো. আয়েজ উদ্দিন শরীফের ছেলে। গোপালগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান, গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. মনিরুল ইসলাম, নড়াগাতী থানার ওসি মো. আলমগীর কবিরসহ পুলিশের পদস্থ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নিহত টিটো শরীফের বডিগার্ড দুলাল চৌধুরী জানিয়েছেন, ইটভাটার জমি নিয়ে টিটো শরীফের সঙ্গে গোপালগঞ্জের সীমান্তবর্তী চরসিংগাতী গ্রামের বক্কার চৌধুরীর বিরোধ চলছিলো। শনিবার ওই জমি নিয়ে উভয় পক্ষ সালিশ বৈঠক করে। সালিশে টিটো শরীফকে ওই জমিতে কাজ করতে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। রোববার সকালে টিটো শরীফ শ্রমিক দিয়ে ওই জমিতে সীমানা বেড়া দেওয়ার কাজ শুরু করেন। এরপর দুপুর ১২টার দিকে মোটরসাইকেলে করে  জমি থেকে গোপালগঞ্জ শহরে রওনা দেন। এ সময় ইটভাটার সামনে থাকা পলাশ চৌধুরী, সেন্টু চৌধুরী, নতুন চৌধুরী, বক্কার চৌধুরী, রফিকুল ও আব্দুল্লাহর  নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী টেটাবিদ্ধ করে তাকে মোটরসাইকেল থেকে ফেলে দেয়। পরে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা করে। এ সময় সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে তার ডানহাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। পরে তারা মধুমতি নদী সাঁতরে পালিয়ে যায়।

গোপালগঞ্জ ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসলাম খান বলেন, এ খুনের সঙ্গে জড়িতদের নাম পেয়েছি। কিন্তু ঘটনাস্থল নড়াইল জেলার নড়াগাতী থানায় হওয়ায় নড়াইল পুলিশ সুপারকে বিষয়টি জানিয়েছি ও জড়িতদের নামঠিকানা দিয়েছি। গোপালগঞ্জ ও নড়াইল পুলিশ আসামিদের ধরতে যৌথ অভিযান শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.