সভ্যতার আলো

সভ্যতার আলো, তার লিখনী দিয়ে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধশালী সভ্য জাতি গঠনে অনন্য ভূমিকা রাখবে

কারাবন্দী বিএনপির চেয়ারপারসনকে বিএসএমএমইউ নেয়া হবে – আইনমন্ত্রী

কারাবন্দী বিএনপির  চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

আজ রোববার দুপুরে সচিবালয়ে কয়েকজন জেলা জজের গাড়ির চাবি হস্তান্তর অনুষ্ঠানে খালেদা জিয়ার অসুস্থতার বিষয়ে নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন আনিসুল হক।

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, খালেদার জিয়ার শারীরিক অবস্থার বিষয়ে সরকার অবগত রয়েছে। তিনি বলেন, যেসব পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নিতে হয় যে মাইল্ড স্ট্রোক হয়েছে কি না, সে ব্যাপারে আজ খালেদা জিয়াকে বিএসএমএমইউতে নিয়ে যাওয়া হবে।

খালেদা জিয়ার বিষয়ে আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘তিনি (খালেদা) রোজা রেখেছিলেন। রোজা রাখার পরে বেলা তিনটা-সাড়ে তিনটার দিকে একটু হেলে পড়ে যাচ্ছিলেন, তখন তাঁকে যে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হয়েছে, ওখানে যে লোক আছে—ফাতেমা—সে তাঁকে ধরে ফেলে এবং তাৎক্ষণিক জেলে ডাক্তাররা তাঁকে দেখেন।’ তিনি বলেন, খালেদা জিয়া যেহেতু রোজা রেখেছিলেন, তাঁর সুগার লেভেল কমে গিয়েছিল বলে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন।

গতকাল শনিবার খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চার চিকিৎসক তাঁকে কারাগারে গিয়ে দেখে আসেন। পরে চিকিৎসকদের পক্ষ থেকে বলা হয়, গত মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ‘মাইল্ড স্ট্রোক’ হয়েছিল বলে তাঁরা ধারণা করছেন।

গত ১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য গঠিত বিশেষ মেডিকেল বোর্ড কারাগারে গিয়ে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে। বোর্ডের সদস্যরা হলেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অধ্যাপক মো. শামছুজ্জামান (অর্থোপেডিকস), অধ্যাপক মনসুর হাবীব (নিউরোলজি), অধ্যাপক টিটু মিয়া (মেডিসিন) ও সোহেলী রহমান (ফিজিক্যাল মেডিসিন)। এই বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়, খালেদা জিয়া অসুস্থ হলেও তা গুরুতর নয়। গত ৭ এপ্রিল বিএসএমএমইউয়ে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে কারাগারে ফিরিয়ে নেওয়া হয়।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ের পর গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া পুরোনো ঢাকার কারাগারে বন্দী আছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.