সভ্যতার আলো

সভ্যতার আলো, তার লিখনী দিয়ে আরো উন্নত ও সমৃদ্ধশালী সভ্য জাতি গঠনে অনন্য ভূমিকা রাখবে

শতভাগ গার্মেন্টস কারখানায় উৎসব ভাতা পরিশোধ-বিজিএমইএ

নিউজ ডেস্ক : ঈদ উপলক্ষ্যে শতভাগ গার্মেন্টস কারখানায় উৎসব ভাতা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন পোশাক রফতানিকারক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান।  এছাড়া তৈরি পোশাক শিল্পের সঙ্গে জড়িত সব কারখানার শ্রমিকদের মে মাসের বেতন পরিশোধ করা হয়েছে বলে তিনি দাবি করা করেছেন। তিনি আরও বলেন, দেশের ৯৮ শতাংশ তৈরি পোশাক কারখানার সব শ্রমিকদের চলতি জুন মাসের বেতন পরিশোধ করা হয়েছে।

 

শনিবার রাজধানীর কাওরান বাজারের বিজিএমইএ ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনটির সভাপতি এসব কথা বলেন। ঈদ উপলক্ষ্যে দেশের তৈরি পোশাক শিল্পের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরতে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

 

সিদ্দিকুর রহমান বলেন, সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সব তৈরি পোশাক কারখানা শ্রমিকদের বেতন, উৎসব বোনাস ও জুন মাসের বেতন পরিশোধ কার্যক্রম তদারকি করেছে বিজিএমইএ। ইতোমধ্যে শতভাগ কারখানার শ্রমিকদের মে মাসের বেতন ও উৎসব ভাতা পরিশোধ করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ৯৮ শতাংশ কারখানার শ্রমিকদের জুন মাসের অগ্রিম বেতনও পরিশোধ করা হয়েছে। বাকি ২ শতাংশ কারখানার শ্রমিকদের জুন মাসের বেতন শনিবারের মধ্যেই পরিশোধ করা হবে।

 

তিনি বলেন, ঈদের আগে বেতন-ভাতা নিয়ে সমস্যা হতে পারে এমন কিছু কারখানার তালিকা আমরা বিভিন্ন সংস্থার মাধ্যমে পেয়েছিলাম। বিভিন্ন সংস্থা থেকে প্রাপ্ত ১ হাজার ১০০টি প্রতিষ্ঠানকে ক্লোজ মনিটরিংয়ের আওতায় এনে সমস্যার ধরন বুঝে সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। বিজিএমইএ ঢাকা অফিসের মধ্যস্থতায় প্রায় ৩১টি কারখানার সমস্যা সমাধান করে শ্রমিকদের পাওনা পরিশোধ করা হয়েছে। এ মুহূর্তে আমাদের হাতে বেতন-ভাতা পরিশোধ বিষয়ে সমাধান হয়নি এরকম একটি কারখানাও নেই।

 

শ্রমিকরা যাতে সুষ্ঠুভাবে বেতন-ভাতা পায় সে লক্ষ্যে সরকার ও আমরা মিলে অগ্রিম প্রস্তুতিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। এর আওতায় ঢাকাকে ১৫টি জোনে ভাগ করে ১৫টি জোনভিত্তিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতিবছরের মতো এবারো কেন্দ্রীয়ভাবে ক্রাইসিস কন্ট্রোল রুম খোলা হয়। এর বাইরে সরকারের গঠিত আঞ্চলিক ক্রাইসিস কমিটি কাজ করছে। বিজিএমইএ’র সদস্য ৩১শ কারখানার শতভাগ বেতনভাতা পরিশোধ করা হয়ছে। তিনি আরও বলেন, সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক শুক্রবার পর্যন্ত ৮৫ শতাংশ কারখানার শ্রমিক ঈদের ছুটি পেয়েছে। বাকি ১৫ শতাংশ কারখানার শ্রমিকরা শনিবারের মধ্যে ছুটি পাবেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ’র সিনিয়র সহসভাপতি এসএম মান্নান কচি, কাজী ফারুকুল হাসান প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.